প্রচ্ছদ

মঠবাড়িয়ায় গভীর রাতে বসত ঘরে হমলা লুটপাট ৪ সন্তানের জননী গৃহবধুকে শ্লীলতাহানী ও পিটিয়ে জখম

  প্রতিনিধি ৫ অক্টোবর ২০২০ , ১২:৩৩:৪৮ প্রিন্ট সংস্করণ

মঠবাড়িয়ায় গভীর রাতে বসত ঘরে হমলা লুটপাট
৪ সন্তানের জননী গৃহবধুকে শ্লীলতাহানী ও পিটিয়ে
জখম
মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় পূর্ব শত্রতার জেরে গভীর রাতে বসত ঘরে হমলা, লুটপাট ৪ সন্তানের জননী গৃহবধুকে পিটিয়ে জখম ও শ্লীলতাহানীর অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। রোববার রাতে আহত ওই
গৃহবধু রানী বেগম বাদী হয়ে মিলন শিকদারের ছেলে শুভ শিকদার (২৫) কে প্রধান আসামী করে ৪জন নামিয় ও অজ্ঞাত ৫জনকে আসামী করে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা করেন। আহত ওই গৃহবধু উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের কবির শিকদারের স্ত্রী সে ৪ সন্তানের জননী। মামলা ও আহত সূত্রে জানা যায়, আহত গৃহবধু রানী বেগমের স্বামী কবির
শিকদারের সাথে প্রতিবেশী শুভ শিকদারসহ অন্য আসামীদের সাথে জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। তারই ধারাবাহিকতায় গত ২অক্টোবর দিবাগত গভীর রাতে আসামীরা দেশিয় অস্ত্র ও লোহার রড নিয়ে বসত ঘরে প্রবেশ করে ভাংচুর ও লুটপাট করে এতে বাধা দিলে আসামীরা আমার (ওই গৃহবধু) এর শাড়ী বøাউজ টানিয়া ছিড়িয়া শ্লীলতাহানী করে। এ সময় ডাক চিৎকার করিলে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে ওই গৃহবধুর মাথায় মারাত্মক জখম করে। এ সময় ওই গৃহবধুর ছেলের স্ত্রী ও মেয়েদের গলায় থাকা শ^র্ণলংকার ছিনিয়ে নেয় এবং মারধর করে প্রাননাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা এসে আমাদে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে ছেলের স্ত্রী ও মেয়েদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেরে দেয় এবং ওউ গৃহবধুর মাথার জখম গুরুতর হওয়ায় তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আ,জ,মো মাসুদুজ্জামান মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

আরও খবর

Sponsered content

ব্রেকিং নিউজ