1. admin@mathbariasamachar.com : admin :
শিরোনাম :
মঠবাড়িয়ায় কুচক্রী মহলের ইন্ধনে মসজিদ ঘর ভেঙ্গে ফেললো সংখ্যালঘুরা মঠবাড়িয়ায় ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় নারীসহ আহত -৬ নেতৃত্বের প্রতি আস্থা রেখে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলেন ছগির ঝাকঝমক আয়োজনে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করল মঠবাড়িয়ার নট আউট ফুটবল একাডেমি বামনা থানা অফিসার ইনচার্জের সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপজেলার সব ইউনিয়নে ব্যাতিক্রমী মহড়া জীবন-জীবিকার বাজেটে প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি মঠবাড়িয়ায় দুর্ধর্ষ ডাকাত গ্রেপ্তার – ২ মঠবাড়িয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় -২ নারী সহ আহত -৩ মঠবাড়িয়ায় সংখ্যালগুদের জমি মসজিদের নামে দখলের পায়তারা”সম্প্রদায়িক দাঙ্গার আশঙ্কা মঠবাড়িয়ায় একদিনে দুই গৃহবধূর আত্মহত্যা

নিখোঁজ হওয়া শিশু তানিয়া মঠবাড়িয়ায় বাবা মা ও বাড়ির খোঁজ পেতে চায়

  • প্রকাশনা : মঙ্গলবার, ৫ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৯৩ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ ১৮ বছর আগে বাবার সাথে ঢাকায় ফুপাত বোনের বাসায় বেড়াতে গিয়ে সাত বছরের শিশু তানিয়া নিখোঁজ হয়। বর্তমানে ব্রাম্মনবাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলার শান্তিনগর গ্রামের মোঃ সুরুজ মিয়ার ছেলে মোঃ আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী ২ সন্তানের জননী তানিয়া (২৪) তার বাবা, মা ও বাড়ির সন্ধান পেতে পাগল প্রায়। মেহেদী হাসান জনৈক নামে জনৈক ব্যাক্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তানিয়ার ছবি সহ স্টাটাস দিলে বিষয়টি সকলের নজরে আসে। স্বামীর বড়ি থেকে মুঠো ফোনে তানিয়া জানায়, তার বাবার নাম সুন্দর আলী শিকদার, মাতার নাম বিলকিস বেগম। বাবা ভ্যান চালক ছিল। ৩ বোন ও ১ ভাইয়ের মধ্যে তানিয়া সবার বড়। অন্য বোন দের নাম সোনিয়া ও মনিকা এবং ভাইয়ের নাম কাইয়ুম। তার বাড়ির নাম মঠবাড়িয়ার বান্দাবাড়ি এবং নানা বাড়ি বলতুলি বলে জানান। তবে মঠবাড়িয়ায় এই নামে কোন ¯’ান নেই জানালে তানিয়া জানায় শিশু বয়সে বাড়ি ছাড়ায় হয়ত সে নাম স্পষ্ট বলতে পারছে না বলে জানায়। তানিয়া জানায়, প্রায় ১৮ বছর আগে মাত্র ৭ বছর বয়সে বাবার সাথে লঞ্চে ঢাকা লালমাটিয়ায় সরকারী কোয়াটারে তার ফুফাত বোনের (নাম জানা নাই) বাসায় বেড়াতে যায়। তার বোন ও বোন জামাই চাকরীজীবি ছিল। পরদিন সকালে পরে এসে তাকে নিয়ে যাবে বলে তার বাবা বাড়িতে চলে আসে। তানিয়া ফুফাত বোনের সন্তানকে নিয়ে স্কুলে যায়। শিশু তানিয়া স্কুল থেকে বাবার খোঁজে রাস্তায় নেমে হাটতে থাকলে এক সময় স্কুল ও বোনের বাসা হারিয়ে ফেলে। তানিয়ার স্বামী আনোয়ার হোসেন জানান, পথ হারিয়ে তানিয়া ওই দিন সন্ধায় লালমাটিয়ার একটি দোকানের সামনে বসে কাঁদতে থাকলে দোকানে টিভি দেখতে থাকা জনৈক ব্যাক্তি তানিয়াকে তার বাসায় নিয়ে যায়। পরদিন লালমাটিয়ার একটি মসজিদের ইমাম মোঃ রিপন ওই বাসা থেকে তানিয়াকে তার বাসায় নিয়ে লালন পালন করনে। ইমাম রিপনের বাড়িও ব্রাম্মনবাড়িয়া জেলায় হওয়ার সুবাদে তাদের মধ্যে পরিচয়। এক পর্যায় ২০১৪ সালে তানিয়ার সাথে আনোয়ারের বিয়ে হয়। আনোয়ার হোসেনের স্ব-মিলের ব্যবসা আছে। বর্তমানে তারা ঘরে মেয়ে লামিয়া (৫) ও ছেলে জামির (২) এর বাবা-মা।আনোয়ার হোসেন জানান, বান্দাবাড়ি ও বলতুলি পিরোজপুর অথবা গোপলগঞ্জ জেলার কোন ¯’ান হতে পারে। ২ বছর আগে সে মঠবাড়িয়া ও গোপালগঞ্জে এসে খোঁজা-খুঁজি করলেও কোন সন্ধান পায়নি। তানিয়া তার জন্মদাতা বাবা-মার জন্য এখনও নিরবে চোখের পানি ফেলে দিন কাটায়। কেউ খোঁজ পেলে তার স্বামী মোঃ আনোয়াার হোসেনের মোবাইল নম্বরে (০১৭১০-২২০২২৪) যোগাযোগের জন্য সনির্বন্ধ অনুরোধ জানিয়েছেন।

Facebook

আজকের বাংলা তারিখ

  • আজ সোমবার, ২১শে জুন, ২০২১ ইং
  • ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
  • ১০ই জ্বিলকদ, ১৪৪২ হিজরী

Please Share

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 mathbaria samacher
আইটি সাপোর্ট web Disgine it