1. admin@mathbariasamachar.com : admin :
শিরোনাম :
বামনা থানা অফিসার ইনচার্জের সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপজেলার সব ইউনিয়নে ব্যাতিক্রমী মহড়া জীবন-জীবিকার বাজেটে প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি মঠবাড়িয়ায় দুর্ধর্ষ ডাকাত গ্রেপ্তার – ২ মঠবাড়িয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় -২ নারী সহ আহত -৩ মঠবাড়িয়ায় সংখ্যালগুদের জমি মসজিদের নামে দখলের পায়তারা”সম্প্রদায়িক দাঙ্গার আশঙ্কা মঠবাড়িয়ায় একদিনে দুই গৃহবধূর আত্মহত্যা মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তার বেহাল দশা “জন দুর্ভোগে এলাকাবাসী পিরোজপুর ঘুর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করলো IHWS মঠবাড়িয়ায় যুবককে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনার মামলায় গ্রেপ্তার-১ মঠবাড়িয়ায় সেবাশ্রমের কমিটি গঠন

প্রশাসন ম্যানেজ করে মঠবাড়িয়ায় অবৈধ ইট ভাটা ! বাড়ছে স্বাস্থ্য ঝুঁকি

  • প্রকাশনা : সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩৯ বার

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ফসলি জমি, ফলদ ও বনজ বাগান ও বাসা বাড়ি, চলাচলের রাস্তাসহ ঘন বসতিপূর্ণ এলাকায় অবৈধ ইট ভাটা (পাঁজা) ও পুইনে প্রকাশ্যে কাঠ পোড়ানো হচ্ছে। আইনের প্রতি বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখিয়ে যত্রতত্র কাঠ দিয়ে ইট পোড়ানের ফলে জমির উর্বর ক্ষমতা কমছে ও এলাকার বনজ সম্পদ উজাড় হয়ে পরিবেশের ভারসাম্য হারাচ্ছে। অন্যদিকে, পাঁজার কালো ধোয়ায় করোনা কালীন সময়ে সর্দি কাশিসহ শ্বাস কষ্টের ঝুঁকিও বাড়ছে। জানাযায়- চলতি শুকনো মৌসুম শুতেরুই উপকূলীয় উপজেলার ১১ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় জেলা প্রশাসকের কোন লাইসেন্স ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়াই ৪০/৪৫টি পাঁজা পোড়া শুকরেরু। অবৈধ ইট পাঁজায় ফসলি কৃষি জমির উপরি অংশ সরকারী খাল ও নদীর মাটি অবৈধ ভাবে খনন করে ইট তৈরীর কাজে ব্যবহার করছে। এই ইট আম, জাম, কাঁঠাল রেন্ট্রি, মেহগনি, চাম্বলসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ ইট পোড়ার কাজে ব্যবহার করছে। প্রকাশ্যে কাঠ দিয়ে ইট পুড়লেও কর্তপক্ষ নীরব। সরকার এ অবৈধ পাঁজার বিরুদ্ধে কঠোর থাকলেও এলাকার প্রভাবশালী মহল প্রশাসনকে ম্যানেজ করে অবৈধ কর্যক্রম চালাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।উপজেলার ধানীসাফা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের পূর্ব পাতাকাটা ও পশ্চিম পাতাকা সংযোগ রাস্তার ওপর স্থানীয় সরোয়ার হোসেন মোক্তার দীর্ঘদিন ধরে রাস্তা সংলগ্ন জমির মাটি কেটে ইট তৈরীর ফলে ওই রাস্তাটির বিভিন্ন স্থানে ফাঁটল দেখা দিয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা বৃদ্ধ হুল আমীন ফরাজী (৭০) অভিযোগ বলেন চলাচলের রাস্তাটিতে পাজা মালিক এখানে -সেখানে কাঠ ও ইট ফেলে রাখার কারনে এলাকাবাসীর চলাচলে দারুন ভোগান্তি পোহাতে হয়। সরজমিনে গেলে দেখা যায়, উপজেলার হক বাজার সংলগ্ন আমন ও সব্জি ক্ষেতের ওপর স্থানীয় প্রভাবশালী মোসলেম শরীফের অবৈধ পাঁজায় থরে থরে সাঁজানো মাটির ইট। স্থানীয় বাসিন্দা ছায়া রানী (৪৫) জানান, দীর্ঘদিন লেবাননে প্রবাসে গৃহকর্মীর কাজ করে দেশে এসে ৭৪ শতাংশ জমি ক্রয় করে ঘর উত্তোলন করে গত দশ বছর ধরে ছেলে মেয়ে নিয়ে বসবাস করে আসছি। কিন্তু গত বছর স্থানীয় মোসলেম শরীফ বাড়ির সামনে ফসলি জমিতে অবৈধ পাঁজার আগুনের কালো ধোয়ায় কারণে ফলদ ও বনজ বাগান কালো পাতা ঝড়ে পরে ফল নষ্ট হয়ে যায়। চলতি বছরেও পুনরায় ওই স্থানে ইট তৈরী দেখে আতঙ্কের মধ্যে আছি। পাঁজা মালিক প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিদ্ধেরুমুখ খুলতে সাহস পাচ্ছি না। স্থানীয় বাসিন্দা মাদ্রাসা শিক্ষক মোঃ সওগাতুল আলম বলেন, এ অবৈধ পাঁজায় আগুন দিলে পাঁজা সংলগ্ন প্রায় ৪০ একর জমির ইরি ধান, মূগ, সূর্যমূখী ক্ষেত হুমকির মূখে পড়বে। ওই সড়কে বেতমোর বাজারে প্রবেশ মুখে ব্রীজ সংলগ্ন সোহরাব চৌকিদারের ফলদ গাছের মধ্যে অবৈধ পাঁজায় সরকারী খালের মাটি কেটে ইট তৈরী করতে দেখা গেছে। স্থানীয়রা জানান, এ পাঁজায় কাঠ দিয়ে আগুন দেয়ার সময় কালা ধোয়ায় শ্বাস কষ্টসহ স্বাস্থ্য ঝুকি বেড়ে যাওয়া সহ সড়কে যান চলাচলের দারুন দুর্ভোগ পোহাতে হয়। স্থানীয় ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম বলেন, অবৈধ ভাবে ইট কাটার ফলে ওই রাস্তাটি ঝুকির মধ্যে রয়েছে বলে অভিযোগ করেন। এ ব্যপারে আমি এই অবৈধ পাঁজার প্রতিবাদ করলে সরোয়ার ভুমি অফিস হতে অনুমতি নিয়ে ইট কাটছেন বলে দাবী করেন। প্রভাভশালী পাঁজা মালিক মোসলেম শরীফের সাথে কথা বললে তিনি জানান- তার পাঁজায় কোন ক্ষতি হয় না। তিনি তার জমিতে ইট কাটাচ্ছেন বলে এতে কারও ক্ষতি হওয়ার কথা না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পাঁজা মালিক জানান, উপজেলা নিবাহী অফিস ও থানা পুলিশকে নিয়মিত মাসোয়ারা দিয়ে তারা ইট পোড়াচ্ছে। এজন্য প্রশাসন দেখেও না দেখার ভান করে।

Facebook

আজকের বাংলা তারিখ

  • আজ শুক্রবার, ১১ই জুন, ২০২১ ইং
  • ২৮শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)
  • ১লা জ্বিলকদ, ১৪৪২ হিজরী

Please Share

More News Of This Category
© All rights reserved © 2017 mathbaria samacher
আইটি সাপোর্ট web Disgine it