সারাদেশ

পদ্মা সেতুর ১০ নিরাপত্তাকর্মী আটক , পিটিয়ে হত্যা অটোরিকশা চালককে

  প্রতিনিধি ২৭ আগস্ট ২০২১ , ২:৩৬:৫৮ প্রিন্ট সংস্করণ

মঠবাড়িয়া সমাচার ডেস্ক: মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলায় চোর সন্দেহে মো. জুলহাস হাওলাদার (৩৫) নামে এক অটোরিকশা চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (২৭ আগস্ট) সকালে উপজেলার পদ্মা সেতু সংলগ্ন মাওয়া চার রাস্তা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিকেল ৩টা পর্যন্ত এ ঘটনায় জড়িত থাকায় পদ্মা সেতুর ১০ নিরাপত্তাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত জুলহাস হাওলাদার উপজেলার কুমারভোগ পুনর্বাসনের মৃত হাসান হাওলাদারের ছেলে।

আটকরা হলেন- মো. সেলিম, মো. রাব্বি, তপু মিয়া, আল-আমিন হোসেন, আরিফ হোসেন, আব্দুল মান্নান, ইসরাফিলসহ ১০ জন।

স্থানীয়রা জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে জুলহাসকে পদ্মা সেতুর কাজে নিয়োজিত নিরাপত্তাকর্মীরা চুরির অভিযোগে রড দিয়ে বেদম মারধর করে। এতে গুরুতর আহত হন জুলহাস। জুলহাসের স্বজনরা খবর পেয়ে তাকে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

লৌহজং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসাইন বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। এরা সবাই পদ্মা সেতুর নিরাপত্তাকর্মী। আটক ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসা করা হলে তারা জানান- জুলহাসকে চোর সন্দেহে তারা মারধর করেন। তবে নিহতের স্বজনদের দাবি- পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জুলহাসকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রেজাউল হক জানান, সকাল ৯টার দিকে ওই ব্যক্তিকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। পরবর্তীতে পুলিশকে ঘটনাটি জানানো হলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (লৌহজং-শ্রীনগর সার্কেল) মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ তারা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত বলে স্বীকার করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email

আরও খবর

Sponsered content

ব্রেকিং নিউজ