সারাদেশ

১৫ বছরের মধ্যে এমন খারাপ সময় কখনো হয়নি”কলাপাড়ার জেলেরা হতাশ”

                         মঠবাড়িয়া সমাচার ২ অক্টোবর ২০২১ , ৫:০১:০৬ প্রিন্ট সংস্করণ

               

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ‘সাগরে গত ১৫ বছর ধরে মাছ ধরি কিন্তু এ বছরের মত খারাপ সময় কখনোই হয়নি। শুক্রবার (১ অক্টোবর) সকালে সাগরে গিয়ে বিকেলে ফিরছি, নৌকায় চার জেলে ৩২টি জাল তুলে মাত্র ৯টি ইলিশ পেয়েছি। এ দিয়ে কি করব? তেল কিনবো নাকি বাজার সদায় কিনবো’- এমন আক্ষেপ করে কথাগুলো বলেন পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সংলগ্ন হোসেন পাড়ার জেলে আবুল কালাম।

তিনি আরও জানান, গত দুইমাস আগে গেছে ৬৫ দিনের অবরোধ। এরপর থেকে কয়েক দফায় আবহাওয়া খারাপ হলেও ফাঁকে ফাঁকে সাগরে গেছি। তবে কাঙ্ক্ষিত মাছের দেখা পাইনি। ৪ অক্টোবর থেকে আবার ২২ দিনের অবরোধ শুরু হচ্ছে। এখন দেখছি ভিটা বাড়ি বিক্রি করে ধার দেনা শোধ দিতে হবে।

জানা গেছে, পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় সাড়ে বাইশ হাজার নিবন্ধিত ও পাঁচ হাজার অনিবন্ধিত জেলে রয়েছে। বছরের জৈষ্ঠ্য থেকে আশ্বিন মাস পর্যন্ত ইলিশের মৌসুম ধরা হয়। জেলেরা বছরের বাকি মাসগুলো ধারদেনা করে মাছ ধরার সরঞ্জাম ও সংসার চালায়। ইলিশের মৌসুমে বছরের ধারদেনা পরিশোধ করে। কিন্তু এ বছরের চিত্রটা পুরো উল্টো। আগের ধারদেনা পরিশোধ তো দূরের কথা এখন নতুন করে দেনা করতে হচ্ছে তাদের।

কক্সবাজার, ভোলা, চাঁদপুর ও বরগুনার মৎস্য বন্দরে ইলিশের দেখা মিললেও পটুয়াখালীর বড় দু’টি মৎস্য বন্দর মহিপুর-আলীপুরের চিত্র ভিন্ন। মহিপুর, আলীপুর ও কুয়াকাটা অঞ্চলের যেসব জেলেরা গভীর সমুদ্রে মাছ ধরে তাদের মধ্যে শতকরা ৩০ ভাগ কাঙ্ক্ষিত ইলিশ পেয়েছে।

আলীপুর মৎস্য বন্দরের মনি ফিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আ. জলিল জানান, সমুদ্রে শতাধিক মাছ ধরার ট্রলার রয়েছে। এরমধ্যে ২৫-৩০ ট্রলার যে মাছ নিয়ে আসে তাতে কিছুটা লাভ হয়। কিন্তু বাকি ট্রলারগুলোতে প্রতিনিয়ত লোকসান হচ্ছে।

কুয়াকাটা সংলগ্ন ঝাউবন এলাকার জেলে সত্তার ঘরামি বলেন, ইলিশ আসবে আসবে বলে অবরোধই এসে গেলো। কিন্তু মাছের দেখা পাইনি।

আলীপুর-কুয়াকাটা মৎস্য আড়তদার সমবায় সমিতির সভাপতি আনসার উদ্দিন মোল্লা বলেন, চলতি বছর জেলেরা ৭৩ দিন মাছ ধরার সময় পেলেও বৈরী আবহাওয়ার কারণে মাত্র ২৪ দিন মাছ ধরতে পেরেছে। এটা জেলেদের জন্য আসলেই একটি খারাপ সময়।

কলাপাড়া উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা অপু সাহা জানান, দেশের সব জায়গায় ইলিশ ধরা পড়লেও কলাপাড়ায় পাওয়া যাচ্ছে না। এর কারণটা এখনও বলা যাচ্ছে না। এটা নিয়ে গবেষণা চলমান

Print Friendly, PDF & Email

আরও খবর

Sponsered content

আরও খবর: বরিশাল

                                   

অভাবে পড়ে সন্তান বিক্রি, টাকা নিয়ে পালাল দুই প্রতারক

                             
                                   

মঠবাড়িয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় সৌদিপ্রবাসী নিহত

                             
                                   

মঠবাড়িয়ায় গাঁজা সহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার -১

                             
                                   

মঠবাড়িয়ায় ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার -১

                             
                                   

বুকাবুনিয়ায় উৎসর্গ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ট্রমা আইএমটি এন্ড ম্যাটসেরব ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পেইন

                             
                                   

মঠবাড়িয়ায় সৌদি প্রবাসী পরিবার উপরে হামলা ” মা-ছেলেকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম

                             
ব্রেকিং নিউজ