বরিশাল

মঠবাড়িয়ায় বাল্যবিয়ে পন্ড করে দেন প্রশাসন

                         মঠবাড়িয়া সমাচার ২২ অক্টোবর ২০২১ , ১০:৪৮:২৭ প্রিন্ট সংস্করণ

               

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীর ঘটা করে বিয়ের আয়োজন করেছিলো দুই পরিবার। প্রশাসন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিয়ে অনুষ্ঠানের গেট ভেঙ্গে দিয়ে বাল্যবিয়ে প- করে দেন। পরে বর ও কণের পরিবারের কাছ থেকে উপযুক্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা গ্রহণ করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ বড়মাছুয়া গ্রামের মো. পারভেজ ইলিয়াসের মেয়ে অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী ইসরাত জাহান মিম (১৩) এর সাথে ওমরপুর সিদ্দিরগঞ্জের নারায়নগঞ্জ এলকার মো. আবদুল খালেক হাওলাদারের ছেলে দেলোয়ার হোসেন লিমনের সাথে বৃহস্পতিবার দুপুরে বিয়ের আয়োজন করা হয়। দুপুরে বরের পক্ষের অর্ধশতাধিক মেহমান কনের বাড়িতে উপস্থিত হয়।

খাওদাওয়া শুরু হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. বশির আহম্মেদ অবগত হয়ে তার নির্দেশনা মোতাবেক উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মনিকা আক্তার, স্থানীয় সাংবাদিক ইসরাত জাহান মমতাজ ও থানা পুলিশ বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন। পরে পুলিশের সহযোগীতায় কনে বাড়ির বিয়ের গেট ভেঙ্গে দেয়া হয়। এসময় কণের উপযুক্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার মর্মে উভয় পক্ষের মুচলেকা নিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. বশির আহম্মেদ বলেন, বর ও কনের উপযুক্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা রাখা হয় উভয়ের অভিভাবকের কাছ থেকে। বাল্যবিয়ে বন্ধে অভিযান অব্যহত থাকবে।

আরও খবর

Sponsered content

ব্রেকিং নিউজ