সারাদেশ

বামনায় সঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতির দ্বারা ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে হেনস্তার অভিযোগ

                         মঠবাড়িয়া সমাচার ২ নভেম্বর ২০২১ , ৪:৩৬:২৫ প্রিন্ট সংস্করণ

               

স্টাফ রিপোর্টারঃ ৫৬ নং চলাভাংগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে দৈনিক শিক্ষা.কম এ দুর্নীতির মিথ্যা অপবাদ এনে সংবাদ প্রকাশ করায় নিন্দা প্রকাশ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, সহকারী শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের অভিভাবকগণ।

বিদ্যালয়ের বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আসমা
আক্তারকে আর্থিক অ-নৈতিক সুবিধা না দিয়ে বিদ্যালয়ের নামে বরাদ্দকৃত অর্থদিয়ে বিদ্যালয়ের উন্নয়ন মূলক কাজ করায় বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ আঃহাই এর বিরুদ্ধে এমন সংবাদ প্রকাশ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
বিদ্যালয়টির মাইনর মেরামত খরচের একীভূত হিসাব ২০২০-২০২১ ইং অর্থবছরে মোট ২,০০০০০৳(দুই লক্ষ টাকা)বরাদ্দ হয় যা দিয়ে বিদ্যালয়ের উন্নয়ন মূলক কাজ যেমন রড দিয়ে গেট ও গ্রীল তৈরি বাবদ ১০-০৬-২০২১ইং তারিখ ১৮৪৫৮০৳(এক লক্ষ চুরাশি হাজার পাঁচশত আশি টাকা, তৈরিকৃত গ্রীল বহন করে ডৌয়াতলা বাজার থেকে চলাভাংগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত গাড়ি ভাড়া বাবদ ১৮-০৬-২০২১ইং তারিখ ৪৪২০৳(চার হাজার চারশত বিশ টাকা)এবং রাজমিস্ত্রীর মজুরি বাবদ ১৯-০৬-২০২১ ইং তারিখ ১১,০০০৳ (এগারো হাজার টাকা) সহ সর্বমোট ২,০০০০০৳(দুই লক্ষ)টাকা ব্যয় করেছেন।

উক্ত ২,০০০০০৳(দুই লক্ষ) টাকা বামনা উপজেলাধীন ৫৬ নং চলাভাংগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাইনর মেরামত কাজটি বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক কর্তৃক যথাযথ ভাবে অনুমোদিত প্রাক্কলনো স্পেসিফিকেশন মোতাবেক সুষ্ঠভাবে সমাপ্ত করেছেন। মেরামত কাজ গুনগতমান সন্তোষজনক বলে ২৪-০৬-২০২১ ইং তারিখ প্রত্যয়ন পত্র দিয়েছেন বরগুনার বামনা উপজেলার উপজেলার উপজেলা প্রকৌশলী এবং উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী।

তার পরেও বিদ্যালয়ের বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আসমা আক্তার বিদ্যালয়ের সুনাম অর্জনকারী ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ আঃ হাই এর সুনাম বিনস্টকরণে উদ্দেশ্য প্রনোদিত হয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য প্রমানবিহীন সংবাদ পরিবেশণ করিয়েছেন।যাহার জন্য বিদ্যালয়ের সহকারী৷ শিক্ষক,শিক্ষিকা এবং ম্যানেজিং কমিটির সহসভাপতি ও অন্যান্য সদস্য এবং অভিভাবকরা বিদ্যালয়ের সভাপতি আসমা আক্তারের পদত্যাগ দাবী করেছেন।

উল্লেখ্য বরগুনা জেলার বামনা উপজেলার ডৌয়াতলা ইউনিয়নের ৬৫ নংসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ১৯৯৭ ইং সালে স্থাপিত হয়। দীর্ঘ ১৬ বছর বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকাগন বেতন ছাড়া ই তাদের দ্বায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। পরবর্তীতে ০১-০১-২০১৩ ইং সনে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাফল্যের মাইলফলক হিসেবে বিদ্যালয়টি জাতীয়করণ ঘোষণা করেন।বিদ্যালয়ের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলে ও রয়েছে যথেষ্ট সুনাম।গত ২০১৮ ও ১৯ ইং সালে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা ফুটবল টুর্নামেন্টে বামনা উপজেলা ও বরগুনা জেলা পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এছাড়াও বিদ্যালয়টিতে রয়েছে একটি মুক্তিযুদ্ধ কর্নার যাহাতে সংরক্ষিত রয়েছে বিভিন্ন মুক্তিযুদ্ধের ছবি ও বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের লক্ষ জনতার মাঝে ভাষনের ছবি। শিশু শিক্ষার্থীদের শিক্ষাদানের জন্য মনোরম পরিবেশে সজ্জিত করণ করা হয়েছে প্রাক প্রাথমিক শ্রেণি।

পরিতাপের বিষয় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আসমা আক্তারের কাছে সরাসরি গিয়ে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ আঃ হাই এর দুর্নীতি সংক্রান্ত তার অভিযোগ দ্বায়েরের তথ্য প্রমান চাইলে সে মৌখিক ভাবে বলিলেও বাস্তব প্রমাণসরূপ কোন তথ্য উপাত্ত দেখাতে পারেনাই।

আরও খবর

Sponsered content

ব্রেকিং নিউজ