বরিশাল

মঠবাড়ীয়া দাউদখালি ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ

                         মঠবাড়িয়া সমাচার ২ জানুয়ারি ২০২২ , ৭:২২:১০ প্রিন্ট সংস্করণ

               

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি: পিরোজপুর মঠবাড়ীয়া উপজেলার ৪নং দাউদখালি ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মিয়াজী শামীম আহমেদ নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর, কর্মীদের ভয়ভীতি, হুমকি ও মারপিট করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষ প্রার্থী আবু হানিফ হাওলাদারে বিরুদ্ধে।

এঘটনা উল্লেখ করে রবিবার (০২ জানুয়ারি) রিটার্নিং অফিসার ও মঠবাড়ীয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, পঞ্চম ধাপের নির্বাচনে মঠবাড়িয়া উপজেলা ৪নং দাউদখালী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন আগামী ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। প্রতীক বরাদ্ধ শেষে প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

শনিবার দাউদখালী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মিয়াজী শামীম আহমেদ (তালা মার্কা) কালিবাড়ীর প্রধান নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করা হয়েছে।

মিয়াজী শামীম আহমেদ বলেন, তার আমার জনপ্রিয়তায় ইশ্বার্ণিত হয়ে প্রতিপক্ষ প্রার্থী হানিফ হাওলাদারে নেতৃত্বে মঠবাড়ীয়া উপজেলায় ৪নং দাউদখালী ইউনিয়নের ১নং ওযার্ডের তালা মার্কার ১টি নির্বাচনী কর্যালয় ১/১/২২ তাং সন্ধা আনুমানিক ৭, ৩০ মিঃ সময় ভাংচু করে ২৯/১২/২০২১ তাং প্রচারের মাইক নিয়ে যায় প্রতি দিন পোষ্টাল ছিড়ে নিয়ে যায়। সোহেল গাজী, নুহু গাজী ও মোরগ মার্কার প্রার্থী আবু হানিফ হাওলাদারের লোকজনসহ ১০/১৫ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে আমার নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করেছে। এসময় হামলাকারীরা ৫০/৬০টি চেয়ার , তিনটি হেন মাইক ভেঙ্গে ফেলাসহ দুই হাজার লিফলেট ও তিন হাজার স্টিকার নিয়ে চলে যায়।

এ ব্যাপারে আবু হানিফ হাওলাদার মোরগ মার্কার প্রার্থীকে একাধিকবার ফোন দিয়েও পাওয়া যায় নি

৪নং দাউদখালি ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের ইউনিয়নে সরেজমিনে দেখা যায়, নির্বাচনী সহিংসতা এড়াতে পুলিশ টহল রয়েছে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর অন্যান্য সংস্হার কঠোর নজরদারি রয়েছে।

আরও খবর

Sponsered content

ব্রেকিং নিউজ