চট্টগ্রাম

লক্ষ্মীপুর জেলাতে যুবলীগ নেতার বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন

                         মঠবাড়িয়া সমাচার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২২ , ১২:১৫:৫০ প্রিন্ট সংস্করণ

               

সোহেল হোসেন লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হাবিবুর রহমান পবনকে দলীয় পদ থেকে বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে। সোমবার (৩১ জানুয়ারি) বিকেল ৫পাঁচ টার দিকে রামগঞ্জ পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে আওয়ামী লীগের একাংশ এই আয়োজন করেন। এই সময় পবনের বিরুদ্ধে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তি উপলক্ষে আয়োজিত মেয়র কাপ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের অতিথিদের অপমান করার অভিযোগ করা হয়। তবে উপস্থিত খেলার দর্শক ও অতিথিদের অনেকেই বলতে পারেননি খেলার মাঠে কি ঘটনা ঘটেছিল? তবে পবন খেলার মাঠে প্রবেশের পরই হট্টগোল সৃষ্টি হয়।

এই সময় অতিথি, খেলোয়াড় ও দর্শকরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ ক ম রুহুল আমিন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র বেলাল আহমেদ, উপজেলা বিআরডিবির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ভূ্ঁইয়া সুমন, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও জেলা পরিষদের সদস্য সৈকত মাহমুদ সামছু, উপজলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর কামরুল হাসান ফয়সাল মাল, পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহবায়ক রবিউজ্জামান অপু মালসহ দুই শতাধিক নেতাকর্মী। মানববন্ধনে অভিযোগ করা হয়, মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে পৌর কার্যালয়ের সামনে মেয়র ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। এতে রামগঞ্জ যুবলীগ নামে যুবলীগ নেতা পবনের একটি দল অংশ নেয়।

রোববার (৩০ জানুয়ারি) রাতে পবনের দল ও লামচর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ টিমের মধ্যে সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়। এতে পবনের দল হেরে যায়। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে পবন খেলার প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক আনোয়ার হোছাইন আকন্দ, বিশেষ অতিথি ড. পুলিশ সুপার এএইচএম কামরুজ্জামান, সভাপতি রামগঞ্জ পৌর মেয়র আবুল খায়ের পাটওয়ারী, আওয়ামী লীগ নেতা আ ক ম রুহুল আমিন ও বেলাল আহমেদসহ অতিথিদের গালমন্দ করেন।

এই সময় পবন ও তার লোকজন অতিথিদের চেয়ার থেকে উঠে যেতে বাধ্য করে। পরে পবন নিজেই ওই চেয়ারে গিয়ে বসেন। বক্তারা বলেন, পবন যুবলীগের দায়িত্ব পেয়ে রামগঞ্জে বাহিনী সৃষ্টি করেছেন। সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে এসে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের অপমান করেছেন। এই ঘটনায় তার বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় যুবলীগের কাছে একটি তদন্ত কমিটি গঠনের দাবি জানায়। সুষ্ঠু তদন্তে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হবে। একই সঙ্গে তাকে যুবলীগের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিতে হবে।

বক্তব্য জানতে সন্ধ্যায় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হাবিবুর রহমান পবনকে কল দিলেও তিনি তা রিসিভ করেননি। লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক আনোয়ার হোছাইন আকন্দ বলেন, যুবলীগ নেতা পবনের সঙ্গে আমাদের কোন কথাই হয়নি। তিনি আমাদের সাথে খারাপ আচরণও করেননি।

আরও খবর

Sponsered content

আরও খবর: লক্ষীপুর

                                   

লক্ষ্মীপুর যেখানে বাধা হবে, সেখানে প্রতিরোধ বলেছেন : এ্যানি

                             
                                   

লক্ষ্মীপুরে ইউপি সদস্যের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ, হামলায় আহত ৪জন 

                             
                                   

লক্ষ্মীপুরের  টুপি কিনতে গিয়ে উধাও নাজিম

                             
                                   

লক্ষ্মীপুরের যাত্রীদের কাছে অতিরিক্ত ভাড়া টাকা আদায়ের অভিযোগ

                             
                                   

লক্ষ্মীপুরে ব্যাংক কর্মকতার বাসায় সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ

                             
                                   

নোয়াখালীতে শেখ হাসিনা মেরিন ইনস্টিটিউটের দখলের তদন্ত কমিটি

                             
ব্রেকিং নিউজ