সারাদেশ

১৫ কোটি টাকার কাজ শেষ না হতেই  সড়ক ফেটে নদী

                         মঠবাড়িয়া সমাচার ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২ , ৫:০৯:০০ প্রিন্ট সংস্করণ

               

আনোয়ার জাহিদ, ফরিদপুর জেলাসংবাদদাতাঃ  ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে সাড়ে ১৫ কোটি টাকার বেশি ব্যয়ে নবনির্মিত কাজী সিরাজুল ইসলাম মহিলা কলেজের সামনে থেকে মধুখালীর নওয়াপাড়া পর্যন্ত সড়কের অবস্থা বেহাল। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন সড়কটি সংস্কারসহ প্রশস্তকরণের পর ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় চরম  হতাশ এলাকাবাসী।
শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সড়কটির মাত্র দুই সপ্তাহ আগে সংস্কার করা স্থানেরও পিচ উঠে যাচ্ছে। সড়কের দিক তাকালে মনে হয় কোট জিলাপি ছড়িয়ে আছে। কোথাও সড়ক ফেটে চৌচির কোথাও ফেটে হয়েছে ছোট নদী। এলাকাবাসীর অভিযোগ, নিম্নমানের কাজের জন্যই সড়কের এ বেহাল দশা। নিম্নমানের ইট বালু ও বিটুমিন দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে সড়ক।
গত ১০ দিনে সড়কটির কোন কোন স্থান অন্তত চারবার সংস্কার করা হয়েছে। তবে ঠিকাদারের দাবি, ভারি ট্রাক চলার কারণেই সদ্য সংস্কার করা সড়কটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জানা গেছে, বোয়ালমারী  উপজেলার নতুন বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন কাজী সিরাজুল ইসলাম মহিলা কলেজের সামনে থেকে ময়নার ভিতর দিয়ে মধুখালীর নওয়াপাড়া পর্যন্ত ১২ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়কটির সংস্কার কাজ চলমান। প্রায় সাড়ে ১৫ কোটি ৫৮ লাখ ৯১ হাজার ৪৯১ টাকা ব্যয়ে এই সংস্কার এবং প্রশস্তকরণের কাজ করছে,, মেসার্স জাহিদ অ্যান্ড ব্রাদার্স,, নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।
উপজেলার ঘোষপুর ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড মেম্বার দেলোয়ার হোসেন গনমাধ্যম কে  বলেন, সড়কটি ১৫/২০ দিন আগে করা হয়েছে। এখন পা দিলেই পিচ উঠে যায়। ময়লার ওপর ঢালাই দিয়েছে ঠিকাদার।
ঘোষপুর ইউনিয়নের গোহাইলবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা মুকুল মিয়া গনমাধ্যম কে বলেন, বালুর ওপর কার্পেটিং করায় এক সপ্তাহ পরই পিচ উঠে যাচ্ছে। কোথাও কোথাও একা একাই মসলা ফেটে রাস্তা হা হয়ে গেছে। ফরিদপুর জজ কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট গাজী শাহিদুজ্জামান লিটন তার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন, ‘শুনলাম ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার কাজী সিরাজুল ইসলাম মহিলা কলেজ টু গোহাইলবাড়ি সড়ক নির্মাণ কাজে ‘সমুদ্র-চুরি’ হয়েছে। ’
এ বিষয়ে সড়কটির ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক মো. জাহিদুল হোসেন জাহিদ গনমাধ্যম কে বলেন, ১২কিলোমিটার সড়কের ১১ কিলোমিটারে কোন সমস্যা নেই। বাকি এক কিলোমিটারে ১০ চাকার বালুবাহী ট্রাক চলাচলের কারণে এমনটি হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, বিটুমিন গুলে শুকাতে ১৫ দিন সময় লাগে। কিন্তু সড়কের গোহাইলবাড়ি বাজার হতে চণ্ডিবিলা মাঝিপাড়া পর্যন্ত এক কিলোমিটার সড়কে প্রতিদিন রাতেই বালুবাহী ১০ চাকার ট্রাক ও অবৈধ ট্রলির বেপরোয়া চলচলে এই অবস্হা হয়েছে।  এতে আমার পঞ্চাশ লাখ টাকা লোকসান হবে। লাভের মুখতো বহু দুর।
এ ব্যাপারে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের ফরিদপুর জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী কে এম ফারুক হোসেন গনমাধ্যম কে বলেন, কার্পেটিং শুকাতে সময় লাগে। আমাদের দেশের সড়কগুলো ১০ চাকার ট্রাক চলাচলের উপযোগী নয়। নতুন সড়কে ১০ চাকার বালুবাহী ট্রাক চলায় পিচ উঠে গেছে। আমরা পুরো টিমই সড়কের সংস্কার কাজ পরিদর্শন করেছি। ১০ চাকার ট্রাক চলাচল বন্ধের জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনওর সহায়তা চেয়েছি। তারা সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন। স্হানীয় একজন স্কুল শিক্ষক রহমত মিয়া বলেন, সবাইকেই নতুন সড়ক নির্মানে একটু সচেতন হতে হয়। দেশের সম্পদের উপর কারোর কোন দরদ বা ভালবাসা কিছুই নাই।

আরও খবর

Sponsered content

আরও খবর: ঢাকা

                                   

পি কে হালদারকে বাংলাদেশে হস্তান্তরের ইঙ্গিত ইডির

                             
                                   

ফরিদপুরে ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে তৈরি হচ্ছে আ.লীগের সম্মেলন মঞ্চ

                             
                                   

নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের হামলার শিকার সাংবাদিকরা

                             
                                   

ফেসবুকে নতুন কাপড়ের বিজ্ঞাপন দিয়ে ছেঁড়া কাপড় ডেলিভারি, গ্রেপ্তার ৫

                             
                                   

নিউ মার্কেট এলাকায় সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ আহত শতাধিক, থমথমে নিউমার্কেট এলাকা

                             
                                   

ভেরিফিকেশনের জন্য বাসায় যেতে পারবে না পুলিশ

                             
ব্রেকিং নিউজ